আদালতে অভিযোগ প্রসঙ্গে প্যানেল মেয়র হাসনীর বক্তব্য

গত মঙ্গলবার বিভিন্ন পত্রিকায় ‘প্রাণনাশের হুমকিপ্যানেল মেয়র হাসনীর বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ’ শীর্ষক প্রকাশিত সংবাদ প্রসঙ্গে বক্তব্য প্রদান করেছেন প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী। প্রকাশিত অভিযোগকে ‘বানোয়াট, মিথ্যা ভিত্তিহীন ও কাল্পনিক’ উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এধরনের অভিযোগ আমার বিরুদ্ধে অশুভ ষড়যন্ত্রের অংশ। আমাকে সমাজে হেয় করতে সাজ্জাদ উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে এ কাজ করেছেন। প্রকৃত ঘটনা হলগত ১৭ মে আমরা কোতোয়ালী থানাধীন ১২ জন কাউন্সিলর (পুরুষ ও মহিলা) কোতোয়ালী থানার নতুন ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসীনের আমন্ত্রণে এলাকার সার্বিক আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ে এক মত বিনিময় সভায় মিলিত হই। বৈঠকের স্থিরচিত্র আমিসহ বিভিন্ন কাউন্সিলরের আইডি থেকে ফেইসবুকে ছাড়া হয়। সেই ফেইস বুক স্ট্যাটাসএ সাজ্জাদ উদ্দেশ্যমূলকভাবে মন্তব্য করেন– ‘দলের চেয়ে নেতা বড়, নেতার চেয়ে ওসি বড়’।’

গত ২৬শে মে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে নগর আওয়ামী লীগের ইফতার মাহফিল শেষে চলে আসার সময় সাজ্জাদের সাথে দেখা হলে তাকে বললাম, ‘তুমি আমাদের সিনিয়রদের নিয়ে ফেইসবুকে লেখ কেন? আমরা কি তোমার সমবয়সী? আমরা প্রশাসনে আছি, কোথায় যাব না যাব আমরা সেটা ভাল বুঝি, এইগুলো নিয়ে তোমাদের মধ্যে পক্ষে বিপক্ষে লেখালেখি এবং পরবর্তীতে বিরোধ সৃষ্টি হবে এবং নিজেদের মধ্যে যে কোন অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে যেতে পারে। তাই এগুলো না লেখাই ভাল। তোমার কোন বিষয়ে খারাপ লাগলে ফেইসবুকে না লিখে আমাকে সরাসরি বা মোবাইলেও বলতে পারতে।’

ঘটনাটিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে আমার নামে ‘মিথ্যা’ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে উল্লেখ করে হাসনী বলেন, ‘এই বিষয়ে আমি আমার আইনজীবীদের সাথে পরামর্শ করে তার বিরুদ্ধে পরবর্তীতে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।’ প্রেস বিজ্ঞপ্তি।