৩৫ জন দুস্থ প্রবাসীর মরদেহ দেশে পাঠিয়েছে চট্টগ্রাম সমিতি ওমান

প্রতিষ্ঠার ৩ বছরে চট্টগ্রাম সমিতি ওমান ৩৫ জন দুস্থ প্রবাসী বাংলাদেশির মরদেহ দেশে পাঠানোর ব্যবস্থা করেছে। পাশাপাশি ৫০ জনের বেশি দুস্থকে চিকিৎসা সহায়তা এবং জেলখানা, মরুভুমি ও বিমানবন্দরে বিপদে পড়া অনেক প্রবাসী বাংলাদেশিকে জরুরি আর্থিক সাহায্য দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশ স্কুলের মাঠ উন্নয়নসহ প্রবাসীদের স্বার্থ সংরক্ষণে বাস্তবমূখী অনেক পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে এই সময়ে।

গত ২৬ মে মাসকাটের একটি হোটেলে অনুষ্ঠিত সমিতির ৩য় বর্ষপূতি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়। সমিতির সভাপতি লায়ন মোহাম্মদ ইয়াছিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে ব্যবসায়ী শাহজাহান মিয়া, এসএম আকবর, খুরশীদ সাগর, জাহাঙ্গীর চৌধুরী, ওমান আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা এস এম সফি, ওমান বিএনপির সভাপতি সেলিম পারভেজ, মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ নোমান অতিথি ছিলেন। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় জন্য প্রবাসী সিআইপি মর্যাদা অর্জনকারী সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ ইয়াছিন চৌধুরী, উপদেষ্টা মোসাদ্দেক চৌধুরী, নির্বাহী সদস্য হাফেজ মোহাম্মদ ইদ্রিস, প্রকৌশলী আশরাফুর রহমান, সদস্য মোহাম্মদ সামসুল আজিম আনসার ও এ এইচ বদর উদ্দিনকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। অন্যদের মধ্যে সমিতির সিনিয়র সহসভাপতি নুরুল আমিন চৌধুরী, সহসভাপতি সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম ও নুরুল ইসলাম নূরু, সাধারণ সম্পাদক লায়ন প্রকৌশলী তাপস বিশ্বাস, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক জামাল উদ্দিন চৌধুরী, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ রফিকুল আলম, অর্থ সম্পাদক নাছির উদ্দিন, সাংগঠিক সম্পাদক মহিউদ্দিন বাবু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক তৌহিদুল আলম, তথ্য প্রযুক্তি সম্পাদক এমদাদ বাচ্চু এবং কার্যকরী সদস্য কাজী রাশেদ, মো. রহিম উল্লাহ, আবদুল করিম প্রমুখ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন, এ সমিতির মূল লক্ষ্যেই হচ্ছে আর্তমানবতার সেবা। আর এ সেবা শুধু চট্টগ্রামের মানুষদের মাঝে সীমাবদ্ধ রাখা হয়নি, এখানে বসবাসরত সকল বাংলাদেশিকেই দেয়া হচ্ছে। আর এ জন্য ওমানপ্রবাসীদের কাছে এখন আস্থা ও নির্ভরতার ঠিকানা হয়ে উঠেছে চট্টগ্রাম সমিতি। পরে ইফতার মাহফিলে কেক কেটে সমিতির চতুর্থ বর্ষের সূচনা করেন সমিতির উপদেষ্টা ও নেতারা। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।